Home » , , » ঢাকার মগরা by আজিজুর রহমান

ঢাকার মগরা by আজিজুর রহমান

Written By Unknown on Thursday, February 10, 2011 | 5:21 AM

কসময় ঢাকায় স্থায়ীভাবে বসবাস করত এমন একটি জ্ঞাতিগোষ্ঠীর নাম হচ্ছে মগ। বাংলাদেশের দক্ষিণ-পূর্ব সীমান্তসংলগ্ন আরাকান রাজ্য থেকে কয়েক শতাব্দী আগে মগরা বাংলার রাজধানী ঢাকায় এসে বসবাস শুরু করে। ঐতিহাসিকদের মতে, অষ্টম শতক থেকেই মগরা বিচ্ছিন্নভাবে ব্যবসা-বাণিজ্যসহ নানা কারণে বাংলায় প্রবেশ করতে থাকে।

তবে ১৫ শতক থেকে বিভিন্ন সময় রাজনৈতিক নিপীড়নের শিকার হয়ে মগরা মাতৃভূমি ত্যাগ করে বাংলায় আশ্রয় নিতে বাধ্য হয়। ১৭ শতকের প্রথমদিকে রাজনৈতিক কারণে মগদের একটি দল তৎকালীন ঢাকার উত্তর এলাকার শেষপ্রান্তে স্থায়ীভাবে বসবাস শুরু করে। আরাকানের সর্বশ্রেষ্ঠ শাসক রাজা মলহনের মৃত্যুর পর তাঁর জ্যেষ্ঠ পুত্র রাজা শ্রীসুধর্ম (১৬৩২-৩৮ খ্রিস্টাব্দ) সিংহাসনে আরোহণ করেন। নরপতি নামে রাজার এক আত্মীয়-মন্ত্রীর সঙ্গে রানী নাৎসিনমির ছিল গোপন প্রণয়। এরা ষড়যন্ত্র করে ১৬৩৮ খ্রিস্টাব্দে রাজা শ্রীসুধর্ম ও শিশুপুত্র মিনসানিকে হত্যা করে। রানী নাৎসিনমি তার প্রেমিক নরপতিকে রাজা বানিয়ে সিংহাসন দখল করে নেয়। সেই সঙ্গে সাবেক রাজার জ্ঞাতি ও সমর্থকদের নির্বিচারে হত্যার আদেশ জারি করে। ফলে প্রাণভয়ে রাজার হাজার হাজার অনুসারী চট্টগ্রামে এসে আশ্রয় নেন। এ হত্যাকাণ্ড ও সিংহাসন জবরদখলের সংবাদ পেয়ে চট্টগ্রাম অঞ্চলের সুবাদার রাজার ছোট ভাই মেঙ্গতরায় ধরমসা ভ্রাতৃহত্যার প্রতিশোধ নিতে স্বাধীনতা ঘোষণা করেন এবং সিংহাসন জবরদখলকারীদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেন। কিন্তু নৌবাহিনীর দুর্বলতার কারণে যুদ্ধ জয়ের আশা ছেড়ে দিয়ে বাংলায় চলে আসতে বাধ্য হন। সেই রাজনৈতিক গোলযোগের সময় বাংলাদেশের দক্ষিণ-পূর্ব এলাকা এবং দক্ষিণ উপকূলীয় অঞ্চলে কমপক্ষে ৫৫ হাজার মগ বা আরাকানি আশ্রয় নেয়। মেঙ্গতরায় ধরমসা তাঁর পরিবার-পরিজন ও নেতৃস্থানীয় সমর্থকসহ প্রায় ১০-১২ হাজার অনুচর এবং ১৯টি হাতি নিয়ে ঢাকায় চলে আসেন। ঢাকায় এসে তিনি মোগল সুবাদার ইসলাম খান মাসহাদির সঙ্গে সাক্ষাৎ করে আশ্রয় প্রার্থনা করেন এবং তাঁকে তিনটি হাতি উপঢৌকন দেন। সুবাদারও মেঙ্গতরায়কে পাঁচ হাজার টাকা উপহার দেন এবং মসনব ও জায়গির প্রদান করেন। মেঙ্গতরায় ধরমসা নিজ রাজ্যের সার্বভৌমত্ব মোগলদের হাতে অর্পণ করে নিজেকে সম্রাট শাহজাহানের করদরাজা হিসেবে ঘোষণা দেন। তিনি তাঁর সব সমর্থক নিয়ে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন। মেঙ্গতরায় ধরমসার নতুন নাম হয় মীর আবুল কাশেম আল হুসেনি আত-তাবাতাবাই আল-সামনি। সুবাদার তাঁদের বসবাসের ব্যবস্থা করে দেন তখনকার ঢাকা শহরের তিন মাইল উত্তরে এক জঙ্গলাকীর্ণ অঞ্চলে। যা পরবর্তী সময়ে মগবাজার নামে পরিচিতি লাভ করে।

0 comments:

Post a Comment

 
Support : Dhumketo ধূমকেতু | NewsCtg.Com | KUTUBDIA @ কুতুবদিয়া | eBlog
Copyright © 2013. XNews2X - All Rights Reserved
Template Created by Nejam Kutubi Published by Darianagar Publications
Proudly powered by Dhumketo ধূমকেতু